1. babuibasa@gmail.com : editor :
  2. rokunkutubdia@gmail.com : reporter :
  3. rokunkutubdia@yahoo.com : Rokiot Ullah : Rokiot Ullah
  4. rokiotullah@gmail.com : Rokiot Ullah : Rokiot Ullah
বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১২:৪৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শেরপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মানবাধিকার কর্মী মনিরের মৃত্যু শেরপুরে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ঘুমধুম পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ এক মাদক কারবারি রোহিঙ্গা আটক কুতুবদিয়ায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে ক্ষতিগ্রস্ত ৪৯০ পরিবারে অর্থ সহায়তা প্রদান উখিয়ার লম্বাশিয়া ক্যাম্পের রোহিঙ্গা ইউনুস ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ রামুতে আটক পেকুয়ায় ইউপি সদস্য আবুল কাশেমের বিবৃতি শাপলাপুরের গহীন পাহাড়ে মহেশখালী থানা পুলিশের অভিযান ২ টি অস্ত্র উদ্ধার,আটক ১ উখিয়ায় পেটের ভেতরের ৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ বগুড়ার সুজন প্রামাণিক আটক! উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ হতাহত-৬ নকলার লাভলু ভাত না খেয়েও অতিবাহিত করলো ২১ বছর

সরকারি নতুন ঘরের আশ্বাস পেয়ে খুশি অসহায় বৃদ্ধা রমিছা

  • সর্বশেষ আপডেট : বুধবার, ২১ এপ্রিল, ২০২১
  • ১২২ জন সংবাদটি পড়েছেন

 

আব্দুল্লাহ আল-আমিন,
শেরপুর প্রতিনিধি:

শেরপুর জেলার নকলা উপজেলাধীন ৫ নং বানেশ্বর্দী ইউনিয়নের বানেশ্বর্দী গ্রামের স্বামী হারা ৮০ বছর বয়স্ক বৃদ্ধা রমিছা বেগম দীর্ঘদিন ধরে পলিথিন ও সিমেন্টের বস্তা দিয়ে ঘেড়া ছোট্ট একটি ঝুপড়ি ঘরে থাকার মাধ্যমে অনাহারে-অর্ধহারে তার দিন কাটে।সামান্য বৃষ্টি এলেই ঘরে পানি পড়ে, হালকা বাতাস এলে অন্যের ঘরে গিয়ে আশ্রয় নিতে হয় তার।

বার্ধক্যের কারণে ঠিকমতো চলাচল করতে পারেন না তিনি আশেপাশের লোকজনের দেয়া খাবারেই চলে তার জীবন। জীবনের শেষ প্রান্তে এসে নিরাপদে একটু শান্তিতে ঘুমাতে চান এই বৃদ্ধা রুমেছা।

এমতাবস্হায় রুমেছার দৈন্যদসার খবর বেশ কিছু মিডিয়াতে “৮০ বছরের অসহায় রুমেছা চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের ঘর”।

উক্ত শিরোনামে খবর প্রকাশিত হওয়ার পরে বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসলে শেরপুরের নকলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুর রহমান আজ ২০ এপ্রিল মঙ্গলবার সকালে বৃদ্ধা রুমেছা বেগমের বাড়ি সরেজমিনে পরিদর্শন করে তার সার্বিক খোঁজখবর নেয়ার মাধ্যমে তাকে ব্যক্তিগত তহবিল হতে কিছু নগদ অর্থ প্রদানের মাধমে সরকারি ঘর পাইয়ে দিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিলে ঘর পাবার কথা শুনে রুমেছার মুখে তৃপ্তির হাসি ও চোখে পানি চলে আসে।

বৃদ্ধা রুমেছা কাপা কাপা কণ্ঠে বলেন, “আল্লাহ শেখের বেটিরে বাঁচাইয়া রাহুক। তাঁর ঘর পাইলে আমি নিজের পাকা ঘরে ঘুমাতে পারবো এবং নিজের ঘরে মরবার পামু। এইডা আমার জীবনের অন্যতম ইচ্ছা আছিল।” এছাড়াও তার এ ইচ্ছা পূরনে যে বা যারা ভূমিকা রাখছেন এবং রাখবেন তাদের জন্য তিনি বাকিজীবন দোয়া করবেন বলে জানান।

এসময় অন্যান্যদের মাঝে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মাজহারুল আনোয়ার মহব্বত, নকলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. মোশারফ হোসাইন, সহ-সভাপতি খন্দকার জসিম উদ্দিন মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন সরকার বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক নূর হোসেন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল আমিন, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান সৌরভ, সদস্য মোফাজ্জল হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহম্মেদসহ এলাকার অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুর রহমান কর্তৃক
বিধবা রমিছা বেগম এর কষ্টের কথা উল্লেখ করে খবর প্রকাশ করায় সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি বলেন,
নকলায় এখনও এরকম জরাজীর্ণ ঘরে কেউ অবস্থান করেন তা খুবই কষ্টদায়ক।তিনি আরও বলেন,দ্রুত সময়ের মধ্যে যেনো এ বৃদ্ধা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে একটি ঘর পেতে পারেন,এ জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে বিশেষ আবেদন করা হবে।

উল্লেখ্য যে, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মাজহারুল আনোয়ার মহব্বতের বাড়ির পাশেই এ অসহায় রমিছার বাড়ি। এ বিষয়ে তিনি বলেন,
এ বৃদ্ধার নিজের বলতে তেমন কোন জমি নেই, তাই তাকে গুচ্ছগ্রামে যেতে বললে তিনি সেবা যত্নের চিন্তা করে সেখানে একা যেতে রাজি হননি। তাই তাকে আজ পর্যন্ত ঘর বরাদ্দ দেওয়া সম্ভব হয়ে উঠেনি।

এছাড়াও তিনি,ব্যাক্তিগত ভাবে সরকারি ঘর পাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত আপাতত রমিছার ঝুপড়ি ঘরটাকে দ্রুততম সময়ের মধ্যে সিমেন্টের খাম ও টিন দিয়ে থাকার মত ব্যবস্থা করে দিবার আশ্বাস দেন।

এ বিষয়ে এলাকাবাসীরা জানান,মুজিববর্ষের অঙ্গিকার ভূমিহীন, গৃহহীন থাকবে না কেউ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে হলেও অন্ততো অসহায় স্বামীহারা রমিছার সরকারি ঘর পাওয়া উচিৎ ছিল।

আপনি সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ চট্টগ্রাম টুডে কর্তৃক সর্বসত্ব সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews
error: Content is protected !!