1. babuibasa@gmail.com : editor :
  2. rokunkutubdia@gmail.com : reporter :
  3. rokunkutubdia@yahoo.com : Rokiot Ullah : Rokiot Ullah
বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন

ঘুমধুমের গাড়ী শ্রমিক আপন বড়ুয়ার যত সম্পদ আয়ের উৎস নিয়ে জনমনে প্রশ্ন উঠেছে

  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৩৬ জন সংবাদটি পড়েছেন

 

বিশেষ প্রতিবেদক,

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের উত্তর ঘুমধুম ৬ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আপন বড়ুয়া।
বাবা মনিন্দ্র বড়ুয়ার ছেলে এক সময়ের হতদরিদ্র, দিনমজুর কামলা থেকে ট্রাকের হেল্পার হিসেবে জীবিকা নির্বাহ করতেন আপন বড়ুয়ারা।ট্রাকের সহকারী থেকে থেকে অদৃশ্যভাবে উত্থান ঘটে তার।নুন আনতে পান্তা পুরাই অবস্থা থেকে গত কয়েক বছরের ব্যবধানে দুটি ডাম্প ট্রাকের মালিক সহ নামে-বেনামে ব্যাংক একাউন্টে রয়েছে প্রচুর টাকা আর সম্পদ।তার রয়েছে মাটি,ইট,
কংকর, বালি সরবরাহের ব্যবসা।

এসব ব্যবসা পরিচালনা ছাড়া তার কোন দৃশ্যমান ব্যবসা নেই।হটাৎ দুটি ডাম্প ট্রাকের মালিক বনে যাওয়ায় এলাকাবাসীর সাথে আচরণে হয়ে উঠেছেন বেপরোয়া।হটাৎ আপন বড়ুয়ার এহেন রহস্যজনক উত্থানে এলাকাবাসীর মাঝে নানা প্রশ্নের উদ্রেক হয়েছে।এক সময়ের আপন বড়ুয়ার দৈনিক আয় দিয়ে সংসারের ঘানি টানতে হিমশিম খেতে হতো।গত কয়েক বছরের ব্যবধানে গাড়ী,মাটি সম্পদ ও নগদ টাকা এবং মাটির ব্যবসায় প্রায় কোটি টাকার বিনিয়োগ মানুষ কে ভাবিয়ে তুলেছে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকের দাবী আপন বড়ুয়া গাড়ী সম্পৃক্ত থাকায় নিষিদ্ধ ব্যবসায় জড়িত।ওইসব ব্যবসা থেকে আলাদিনের চেরাগের মত অর্থশালী হয়ে উঠেছে।

হটাৎ টাকাওয়ালা হওয়াতে কুতুপালং, কচুবনিয়া এলাকায় বীরদর্পে ঘুরে যে কারো সাথে কথায়-কথায় বেপরোয়া আচরণ করছে বলে অনেকেই অভিযোগ করে জানান।বিপুল সম্পদ আর টাকাওয়ালা হওয়ার কারণে পেশীশক্তি সঞ্চয় করে সে।আর পেশীশক্তিকে কাজে লাগিয়ে ঘুমধুম ইউপির সাবেক ইউপি সদস্য সুবত বড়ুয়ার দখল স্বত্বীয় প্রচার জায়গা-জমি লাটিয়াল বাহিনী নিয়ে দখল করেছে।উক্ত জায়গা উদ্ধার করতে আইনী ব্যবস্থা নিলে হত্যা করিবে মর্মে সুবত বড়ুয়াকে প্রতিনিয়ত হুমকিও দিচ্ছে বলে সুবত বড়ুয়া জানিয়েছেন।

আপন বড়ুয়ার অপকর্মের মাত্রায় জানা গেছে, কক্সবাজারের আবদুল্লাহ নামক এক ব্যক্তি কুতুপালংয়ের ভাড়া বাসায় স্বস্ত্রীক বসবাস করতো।তার স্ত্রী উর্মী আকতার কে কুপ্রস্তাব দিলে রাজি না হওয়ায় ২০ মার্চ আপন বড়ুয়া মেরে রক্তাক্ত জখম করে।তার বিরুদ্ধে পাহাড় কেটে মাটি বিক্রিরও বিস্তর অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আপন বড়ুয়ার মুঠোফোনে(০১৮১১৩৬৪৭৯৩) কল দিয়ে বক্তব্য জানার চেষ্টা করে,কল রিসিভ না করাই বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

জানতে চাইলে নাইক্ষ্যংছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মু.আলমগীর হোসেন বলেন,এতদসংক্রান্ত কোন অভিযোগ পাইনি,অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।এদিকে স্থানীয় অনেকেরই দাবী আপন বড়ুয়ার আয়ের উৎস কোথায়, তা খোঁজে ব্যবস্থা নেওয়ার। যদি বৈধ কোন ব্যবসা থাকে,তাহলে সরকার কে আয়কর এবং রাজস্ব প্রদান করেছে কিনা যাচাই করা হউক।

আপনি সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ চট্টগ্রাম টুডে কর্তৃক সর্বসত্ব সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews
error: Content is protected !!