1. babuibasa@gmail.com : editor :
  2. rokunkutubdia@gmail.com : reporter :
  3. rokunkutubdia@yahoo.com : Rokiot Ullah : Rokiot Ullah
  4. rokiotullah@gmail.com : Rokiot Ullah : Rokiot Ullah
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৫:৩৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শাপলাপুরের গহীন পাহাড়ে মহেশখালী থানা পুলিশের অভিযান ২ টি অস্ত্র উদ্ধার,আটক ১ উখিয়ায় পেটের ভেতরের ৩ হাজার পিস ইয়াবাসহ বগুড়ার সুজন প্রামাণিক আটক! উখিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ হতাহত-৬ নকলার লাভলু ভাত না খেয়েও অতিবাহিত করলো ২১ বছর ঘুমধুম পুলিশে ত্রিশ লাখ টাকার তিনটি স্বর্ণের বার উদ্ধার,এক রোহিঙ্গা গ্রেফতার উখিয়ায় পাহাড় কর্তনকালে মাটিসহ ডাম্প ট্রাক মহেশখালীতে জেলা বিএনপি নেতা আতাউল্লাহ বোখারীর নেতৃত্বে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচী পালিত উখিয়ায় বনবিভাগের অভিযানে বালু উত্তোলন কালে ড্রেজার মেশিনের সরঞ্জাম উদ্ধার মহেশখালী থেকে ইয়াবা সরবরাহ করতে গিয়ে নোয়াখালীতে এসে আটক হলেন -২ বান্দরবানে মসজিদের ইমাম হত্যার ঘটনায় শফি পুত্র শাইখুল হাদীস আনাস মাদানীর নিন্দা ও প্রতিবাদ

আমার অপরাধ ও কিছুটা দায়মুক্তিঃ নিকারুজ্জামান চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উখিয়া

  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ২৮ জুলাই, ২০২০
  • ১৩২ জন সংবাদটি পড়েছেন

 

নিজস্ব প্রতিবেদক,উখিয়া(কক্সবাজার)থেকে

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলায় যোগদান করার পর থেকেই চেষ্টা করছি মানুষের যতটা সম্ভব সহযোগিতা করার।করোনা ভাইরাসের প্রকোপের প্রথম দিকের ঘটনা,একদিন স্থানীয় ইউপি সদস্য ফোনে জানালেন তাঁর এলাকায় করোনা রোগী পাওয়া গিয়েছে এবং এটা নিয়ে এলাকাবাসী খুবই আতংকিত।রাত তখন ৯/৯.৩০।
আমি জেনেই রওয়ানা দিলাম।গিয়ে জানতে পারলাম ওই ব্যক্তি কক্সবাজার থেকে এসেছেন এবং তার শরীর খুবই খারাপ।পরের দিন ওনার উখিয়া উপজেলার UHFPO মহোদয়ের সহযোগিতায় করোনাভাইরাসের পরীক্ষা করা হয়।আল্লাহর অশেষ রহমতে ফলাফল নেগেটিভ আসে।
আমি যখন করোনা রেজাল্ট আসার আগ পর্যন্ত তাদের বাড়ি লকডাউন করব,তখন দেখি ঝুপড়ি ঘরে ৫ টি পরিবার থাকে।জালিয়াপালং ও হলদিয়াপালং এর মাঝামাঝি হওয়াতে প্রায়ই সরকারি সাহায্য থেকে বাদ পড়ে যায়।উপজেলা থেকে তখনই স্থানীয় ইউপি সদস্যের মাধ্যমে খাদ্য সহযোগিতা প্রদান করি।তখন বলেছিলাম সরকারি বরাদ্দ পেলে ঘর মেরামতের জন্য টিন দিব।

প্রায় ৪ মাস হয়ে গেল।আমারও আর মনে ছিল না।ওই পরিবারসমূহ আবেদন নিয়ে আসেননি।
গত শনিবার মোবাইল কোর্টে জালিয়াপালং চরপাড়া গেলে সেই পরিবারসমূহের চোখের চাহনি আমাকে চাকরি জীবিনের সবচেয়ে বড় লজ্জায় ফেলে দেয়।

আজ পরিবারসমূহকে সরকারিভাবে বরাদ্দপ্রাপ্ত ২ বান্ডিল করে ঢেউটিন ও নগদ ৬০০০ করে অর্থ সহায়তা দেয়া হয়।
আপাতত কিছুটা হলেও দায়মুক্তি…..

আপনি সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ চট্টগ্রাম টুডে কর্তৃক সর্বসত্ব সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews
error: Content is protected !!