1. balaram.cox@gmail.com : balaram das : balaram das
  2. babuibasa@gmail.com : editor :
  3. news24nazrul@gmail.com : Nazrul Islam : Nazrul Islam
  4. rokunkutubdia@gmail.com : reporter :
  5. rokunkutubdia@yahoo.com : Rokiot Ullah : Rokiot Ullah
রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন

সত্য বারবার প্রতারিত!

  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ২৭ জুন, ২০২০
  • ২৩১ জন সংবাদটি পড়েছেন

মানব প্রকৃতির অন্তর্নিহিত বাসনা হচ্ছে সে প্রশংসিত হতে চায় (প্রফেসর উলিয়াম জেমস)। হয়তো এখান থেকেই প্রকৃত গোলামালটা শুরু। তা না হলে কেউ কি এভাবে ইসলামি চিন্তায় চিন্তিত হয়ে এই করোনাকালের সংকটে বাস্তবতার কঠিন প্রেক্ষাপটে স্বেচ্ছায় অন্যের লাশ দাফনের পর এমন অহেতুক সেজেগুজে মিথ্যা বলতে পারে…?

হ্যাঁ বলছিলাম ইসলামী স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন আল মানাহিলের কথা – ” যারা সম্প্রতি কুতুবদিয়ায় একটি করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যবরণ করা রোগীর দাফন করার পর, ভয়ংকর এক প্রতারণামূলক কাল্পনিক মিথ্যার সংলাপ সেজেগুজে ছেড়ে দিয়েছেন নিজেদের ফেসবুক পেজে “।

যার দরুণ কুতুবদিয়াবাসীর মধ্যে প্রচন্ড ক্ষোভ আর অন্তরে ঘৃণা জন্মেছিলো – যা প্রবল মাত্রায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদের ভাষায় বিস্ফোরিত হয়েছিলো। আমিও তার ধারাবাহিকতায় গা ভাসাই।আসলে অমানবিকতা দেখলেই প্রতিবাদের রংবাজিতে গা জ্বলে যায়।

আর হ্যাঁ এটাকে গুজব ভাবার কোনো কারণ ছিলো না। কারণ একটাই – যারা এই সমাজে ঝুঁকিগ্রহণ করে অতবড়ো একটা মানবিক কাজ করতে পারে তারা নিঃসন্দেহে এই সমাজে বড়ো মনুষ্যত্ব ও ন্যায্যতার প্রকাশ, ন্যায়-নীতির দন্ড।ধরেই নিলাম ইনসাফ তাদের মধ্যে পূর্বশর্ত প্রতীয়মান। এছাড়াও তারা কোরআনের বিভিন্ন শিক্ষাদীক্ষায় আমাদের চাইতেও উন্নত, মানবিক বিবেচনার ইসলামি চিন্তায় অনেক বেশী শিহরিত।ইসলামী বেশভূষায় তাদেরকে দেখা যাচ্ছে আমাদের চাইতে আরও স্বাচ্ছন্দ্যে।

অথচ তারাই কিনা কোন উদ্দেশ্যবিহীন প্রতারণায় এমনভাবে লিপ্ত হতে পারে ভাবাই যায় না। তাদের হয়তো এই সমাজকে উপহাস করার প্রবল ঘৃণা ছিলো অথবা অধিক প্রশংসিত হওয়ার কাফেরি সব লোভ ছিলো। তাদের উচিত এখনি জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়া। আমি তাদের এহেন কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। জাতি জানতে চায় আসলে আপনাদের ভেতরে আসল সত্যটুকু কী…? আদৌ কি আপনাদের ভিতরে ইনসাফ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো নাকি দুনিয়াবি কোন প্রশংসা কুড়িয়ে নেওয়ার জন্য ফেরাউনের মতন অধিক মগ্ন ছিলেন। যে কিনা আখিরাতের সত্যতার প্রত্যক্ষ করার পরও মহান আল্লাহ সুবহানা তায়ালার কাছে কেবল দুনিয়াবি সুখই চাইতেন।তিনি সবকিছু প্রত্যক্ষভাবে উপলব্ধি করার পরও কেবল দুনিয়াবি ক্ষমতা আর প্রশংসাই বেশী পছন্দ করতেন। এবং দুনিয়াবি আরাম আয়েশ তার কাছে অধিক প্রিয় ছিলো।

লেখক – রিয়াদ মাহমুদ তানভীর,

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম টুডে ডটকম।

আপনি সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ চট্টগ্রাম টুডে কর্তৃক সর্বসত্ব সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews
error: Content is protected !!