1. balaram.cox@gmail.com : balaram das : balaram das
  2. babuibasa@gmail.com : editor :
  3. news24nazrul@gmail.com : Nazrul Islam : Nazrul Islam
  4. rokunkutubdia@gmail.com : reporter :
  5. rokunkutubdia@yahoo.com : Rokiot Ullah : Rokiot Ullah
শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিষিদ্ধ ঘোষিত আল মারকাজুল ইসলামীর ১৮ বস্তি উচ্ছেদ মহেশখালী মাতারবাড়ী শহীদ জিয়া ছাত্র পরিষদ কমিঠির অনুমোদন উখিয়া উপজেলার নতুন ইউএনও নিজাম উদ্দিন আহমেদ যোগদান করেছে আজ মহেশখালীর ঝাপুয়া স্মরণকালের বৃহত্তম জানাজা গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী (ভুট্টোর), চিরনিদ্রায় শায়িত মহেশখালীর ঝাপুয়া স্মরণকালের বৃহত্তম জানাজা গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী (ভুট্টোর), চিরনিদ্রায় শায়িত প্রিয় কুতুপালং বাসির প্রতি মেম্বার প্রার্থী হেলাল উদ্দিনের কৃতজ্ঞতা শিকার এবং আরজি উখিয়ায় সাংবাদিকদের সাথে ডিআইজির মতবিনিময় মাদকের বিরুদ্ধে জিরো ঘোষণা, শুরু হবে অভিযান স্থানীয় হতদরিদ্রদের জীবনমান উন্নয়ন ও ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য কাজ করে যাচ্ছে ইউনাইটেড পারপাস উখিয়া আওয়ামী লীগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপন কুতুপালংয়ে স্বশস্ত্র রোহিঙ্গাদের চাঁদা দাবী, স্থানীয় বাড়ি,৭ সিএনজি ভাংচুর-লুটপাট,৮ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

খুরুস্কুলে শালিসী বৈঠকে হামলা, ছাত্রলীগ নেতাসহ আহত ৫

  • সর্বশেষ আপডেট : শনিবার, ১৩ জুন, ২০২০
  • ৮৮ জন সংবাদটি পড়েছেন

কক্সবাজার সংবাদদাতা:

কক্সবাজার সদরের খুরুশকুলে সদ্য নিলাম হওয়া বাজার ইজারা নেওয়ায়
সন্ত্রাসী হামলায় ছাত্রলীগ নেতা ইমরানসহ ৫ জন গুরুতর আহত হয়েছে।

শনিবার (১৩ জুন) বিকেলে একটি শালিসী বৈঠক চলাকালে বাবার সামনেই সদর উপজেলার খুরুশকুল টাইমবাজারে তাদেরকে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে সন্ত্রাসীরা।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপালে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে ছাত্রলীগ নেতা ইমরানের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। আহতরা হলেন, টাইমবাজার এলাকার জহির সওদাগরের ছেলে ও কক্সবাজার সরকারি কলেজের ডিগ্রী পড়ুয়া ছাত্র উপজেলা ছাত্রলীগের কার্যকরী সদস্য ইমরান, তার বাবা জহির সওদাগর, একই এলাকার আকবর, শাহাজাহান, আব্দুল্লাহ, ইলিয়াস মিয়া।

আহত ছাত্রলীগ নেতা ইমরান জানান, সপ্তাহ দু’য়েক আগে সদর উপজেলার আওতাধীন বিভিন্ন বাজার ইজারার বিজ্ঞপ্তি দেখেন স্থানীয় একটি পত্রিকায়।

খুরুশকুল ইউনিয়নের টাইম বাজারটি ইজারা নেওয়ার জন্য গত (২ জুন) একটি ফরম সংগ্রহ করেন। পরে সে দরপত্রের মাধ্যমে ওই বাজারটি ইজারা পেয়ে যান।
এরপর থেকে পূর্বের ইজারাদার খুরুশকুলের সর্বত্র বিশৃঙ্খলাকারী হিসেবে চিহ্নিত মাদক সন্ত্রাসী মনজুর আলম তাকে নানানভাবে হুমকি-ধামকি দিতে থাকেন। শুধু তাই নয়, কয়েকদিন আগে ইমরানের বাড়িতে গিয়ে প্রাণনাশের হুমকিসহ তার মা-বোনকে শাশিয়ে আসেন ওই মাদক সন্ত্রাসী মনজুরসহ তার সহযোগীরা। এসময় শহরের চিহ্নিত কয়েকজন সন্ত্রাসীও তার সাথে ছিলেন বলে দাবী করেছে ভুক্তভোগী পরিবারটি।

এর ধারাবাহিকতায় গত বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টাকা দিকে পারিবারিক কাজে ইমরান বাজারে গেলে টাইম বাজারের মাছ বাজার এলাকায় মনজুর আলমের নেতৃত্বে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা ১০/১২ জনের একদল সন্ত্রাসী অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে ইমরানের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে সে গুরুতর আহত হন। সাথে সাথে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

সেদিন ইমরান সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত হলেও বাজার কমিটির সভাপতি ও স্থানীয় চেয়ারম্যান বিষয়টি স্থানীয়ভাবে সুরাহা করে দেওয়ার কথা বলে শনিবার ১৩ জুন বিকালে শালিসী বৈঠকের সময় নির্ধারণ করেন এবং মামলা-মোকদ্দমা না করার নির্দেশ দেন।

শনিবার বিকেল ৪টার দিকে বাজার কমিটির সভাপতি শাহ আলম ছিদ্দিকির উপস্থিতিতে বৈঠকে বসেন। এসময় হঠাৎ করে মনজুর আলমের নেতৃত্বে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা স্থানীয় মাদক সন্ত্রাসী দিলু, নুর আলম, ইদ্রিস, মোহাম্মদ আলম ও শহরের শীর্ষ কয়েকজন সন্ত্রাসীসহ ৮/১০ জনের একটি গ্রুপ দেশীয় ধারালো অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এতে ঘটনাস্থলেই ৫ জন মারাত্মকভাবে গুরুতর আহত হয়। পরে তাদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয় স্থানীয়রা।

ইমরানের বাবা জহির সওদাগর বলেন- পরিকল্পিতভাবে আমাদেরকে ডেকে নিয়ে হত্যা করার উদ্দেশ্যে হামলা করা হয়। তিনি হামলাকারী মনজুরসহ জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

উপজেলা ছাত্রলীগ নেতার উপর হামলায় ছাত্রলীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে। এদিকে চিকিৎসাধীন ছাত্রলীগ নেতা ইমরানকে আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ অঙ্গ-সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ দেখতে যান। নেতৃবৃন্দ এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান এবং দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

এবিষয়ে সদর থানা ওসি মোহাম্মদ শাহাজান কবির বলেন, এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কোনো লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে

আপনি সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ চট্টগ্রাম টুডে কর্তৃক সর্বসত্ব সংরক্ষিত।
Theme Customized By BreakingNews
error: Content is protected !!